উন্নয়নের স্বার্থে শেখ হাসিনাকে ফের ক্ষমতায় আনুন : গণপূর্তমন্ত্রী

বান্দরবান প্রতিনিধি

বান্দরবানে আওয়ামী লীগের জনসভা

রবিবার , ২৮ জানুয়ারি, ২০১৮ at ৫:৫৬ পূর্বাহ্ণ
7

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রর্থীকে ভোট দিয়ে দেশ ও জাতির উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনাকে ফের সরকার গঠনের সুযোগ দিতে হবে। তিনি পাহাড়ের শান্তির প্রতীক বীর বাহাদুরকে আবারও বিজয়ী করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বিএনপির ভোট চাওয়ার কোন অধিকার নেই, তারা ক্ষমতায় গেলে দেশ অনেক পিছিয়ে পড়ে, হয়না উন্নয়ন। তারা ক্ষমতায় গেলে দেশ বিক্রি করে দেবে। তাই শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে। দলের দেশব্যাপী সাংগঠনিক সফরের অংশ হিসেবে গতকাল শনিবার বিকেলে বান্দরবান রাজারমাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈ হ্লা’র সভাপতিত্বে জনসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন দলের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি, পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক বীর বাহাদুর এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, দলের কেন্দ্রীয় নেতা ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, শাহজাদা মহিউদ্দিন, সাইফুদ্দিন নাসির এবং জেলা নেতৃবৃন্দ।

. হাছান মাহমুদ এমপি বিএনপিকে বর্ষাকালের ব্যাঙ আখ্যায়িত করে বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতেৃত্বে ৯ বছরে দেশের অবস্থা বদলে গেছে। দেশের ১৪ কোটি মানুষ মোবাইল ফোন এবং ৬ কোটি মানুষ ব্যবহার করছেন ইন্টারনেট সেবা। তিনি বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি আদালত যা রায় দেবেন তা মাথাপেতে নিতে হবে। কোন আন্দোলন বা জ্বালাওপোড়াও ও অপ্রীতিকর অবস্থার সৃষ্টি করা হলে আওয়ামী লীগ রাজপথে কঠোর জবাব দেবে।

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর বলেন, পার্বত্য শান্তিচুক্তি সম্পাদনের মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে দুই যুগের হানাহানিহত্যাপাল্টা হত্যাসহ অশান্তির অবসান ঘটেছে। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে পাহাড়ের মানুষ এখন সর্বক্ষেত্রেই স্বাবলম্বী হয়ে উঠছেন। জন সভায় জেলার ৭টি উপজেলার ৩৩টি ইউনিয়ন থেকে কমপক্ষে ১০ হাজার পাহাড়িবাঙালি নারীপুরুষ যোগ দেয়। তারা দিনভর খন্ডখন্ড মিছিল ও শোভাযাত্রা সহকারে জনসভায় অংশ নেন। জনসভাকে কেন্দ্র করে পুরো বান্দরবানে পুলিশ ও প্রশাসন বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

x