কানিজ ফাতেমা (মানুষের মন)

শনিবার , ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ
50

মানুষের মন বলে কথা। কত কিছু যে চায়, তার কোন ইয়ত্তা নেই। কখনো ভাবি এতটুকুন পেলেই যথেষ্ট, আবার কখনো বেশি কেন নয় বলে আফসোস করি। কখনো ভাবি কারো বিষয় নিয়ে ভাববোনা, পরক্ষণে আবার সেটা নিয়েই চর্চা করি। আসলে সত্যিকার মানুষ হওয়া খুব কষ্টের। মানুষের মত মানুষ হতে চাইলেই হওয়া যায়না। কারণ মন নামক যে অদৃশ্য বস্তুটার বাস দেহ নামক কারখানার ভেতরে সে বড়ই অদ্ভুত। আজব তার খেয়াল! অবিশ্বাস্য তার সকল চাহিদা। তাকে দমন করা আর পাগলা ঘোড়াকে আয়ত্তে আনার চেষ্টা করা সমান কথা। সেই জন্যেই মহানবী ()বলেছেন, ‘নিজের মনের কুপ্রবৃত্তির বিরুদ্ধে জিহাদই প্রকৃত জিহাদ’। কারণ মন হলো লাগামহীন ঘোড়া। এই ঘোড়াটাকেই আয়ত্তে আনার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাতে হবে। অনেক সময় মন আবেগী হয়ে যায়,ভালোমন্দ বোঝার মত ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে।একটা অজানা মোহ আকৃষ্ট করে রাখে তাকে। মানুষ হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। আর কখনো কখনো মোহের কারণে চরম ক্ষতি হয় পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের। মোহ একটা রঙিন চশমার মতো। যতক্ষণ চোখে থাকে পৃথিবীটা রঙিন বলে মনে হয়। আর সে চশমা চোখ থেকে খসে পড়লে পৃথিবীটা আবার আগের অবস্থানে ফিরে আসে তবে চরম মূল্য চোকাতে হয়। মানুষ কেন মনকে এত প্রশ্রয় দেয় তার লাগাম কেন টেনে ধরেনা আফসোস যদি মানুষ নিজের বিবেককে মনের চেয়ে বেশি প্রাধান্য দিত তাহলে হয়তো পরিবার,সমাজ,রাষ্ট্রহয়তো পুরো পৃথিবীটাই শুধরে যেতো।

x