চট্টগ্রাম মানেই এগিয়ে থাকা এগিয়ে যাওয়া: চবি ভিসি ড. ইফতেখার

চট্টগ্রাম সমিতি-কাতারের মেজবান ও মিলনমেলা সম্পন্ন

শওকত বাঙালি, দোহা (কাতার) থেকে

মঙ্গলবার , ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ at ২:৪১ পূর্বাহ্ণ
603

বরেণ্য বুদ্ধিজীবী ও শিক্ষাবিদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, “চট্টগ্রাম সবকিছুতে এগিয়ে। মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে আজকের সমৃদ্ধ বাংলাদেশের নিয়ামক শক্তিও চট্টগ্রাম।”
প্রবাসে একখ- চট্টগ্রাম; চট্টগ্রাম সমিতি-কাতারের মেজবান, সম্মাননা প্রদান ও মিলনমেলার ভূয়সী প্রশংসা করে তিনি আরো বলেন, “ঐক্যবদ্ধতার বিকল্প নেই। প্রতিটি বাঙালি সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে-যূথবদ্ধভাবে প্রবাসে বাংলাদেশকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে পারলেই বাংলাদেশের সুনাম প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাবে।”
কাতারের বাঙালি অধ্যুষিত বৃহত্তর সংগঠন চট্টগ্রাম সমিতি-কাতার আয়োজিত মেজবান, সম্মাননা প্রদান ও মিলনমেলায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
কাতারের রাজধানী দোহার অভিজাত কনভেনশন সেন্টার রিজেন্সি হল (রেড)-এ গত ৮ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় সময় রাত ৮টায় সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শফিকুল ইসলাম তালুকদার বাবু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন যথাক্রমে গ্রেটার চিটাগং এসোসিয়েশন (ইউকে)’র সভাপতি ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন ও লেখক-সাংবাদিক-মানবাধিকার সংগঠক শওকত বাঙালি। স্বাগত বক্তব্য দেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ইউসুফ।
সংগঠক মো. আশরাফুল ইসলামের সার্বিক তত্ত্বাবধানে কাজী আশরাফ হোসাইন ও প্রকৌশলী সাদিয়া চৌধুরী’র যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কাতারে বাঙালি কমিউনিটির ৭ বিশিষ্টজনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। প্রধান অতিথিসহ অন্য অতিথিদের কাছ থেকে সম্মাননা সনদ, উত্তরীয় এবং ক্রেস্ট গ্রহণ করেন রাজনীতিতে এসএম ফরিদুল হক, শিল্প ও বাণিজ্যে মো. শামসুল আলম, শিক্ষায় মো. রফিকুল ইসলাম ভূইয়া হেলাল, মুক্তিযুদ্ধে ওমর ফারুক চৌধুরী, ব্যবসায় মো. ইয়াসিন চেয়ারম্যান এবং সমাজসেবায় আলহাজ্ব জিয়া উদ্দিন জিয়া।
উদ্বোধকের বক্তব্যে ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন প্রবাসী বাঙালিদের সমস্যা সমাধানে সমিতিকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়ে দেশের বহুমাত্রিক সামাজিক কর্মযজ্ঞে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শওকত বাঙালি আয়োজকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, “সংগঠনকে সক্রিয় ও মজবুত রাখার অন্যতম প্রধান শর্ত হলো নিয়মিত সাংগঠনিক কর্মকা- অব্যাহত রাখা। প্রবাসে চট্টগ্রাম সমিতি পুরো বাংলাদেশেরই প্রতিনিধিত্ব করছে। সবাইকে সাথে নিয়ে লড়াই করছে-স্বপ্ন দেখছে, বাস্তবায়নও করছে। এখানেই সমিতির সফলতা ও স্বার্থকতা।”
কাতারের রাজধানী দোহার প্রাণকেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে দল-মত-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে হাজার হাজার বাঙালির প্রাণময় উপস্থিতি এক অপূর্ব মিলন মেলায় পরিণত করে।
কোরআন তেলাওয়াত ও জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয় এবং মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী মেজবানের মধ্য দিয়ে পুরো আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।

 

x