প্রমার হৃদয়ে শুনি কবিতার ধ্বনি

আনন্দন প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার , ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৪:৩৯ পূর্বাহ্ণ
39

প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের আয়োজনে সম্প্রতি চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ৮ জন নবীন আবৃত্তিশিল্পীর পরিবেশনায় একক আবৃত্তি অনুষ্ঠান ‘হৃদয়ে শুনি কতিার ধ্বনি” এর ষষ্ঠ পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। শুরুতে বক্তব্য রাখেন প্রমার সভাপতি রাশেদ হাসান ও সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ পাল।

রাশেদ হাসান তাঁর বক্তব্যে নবীন আবৃত্তিশিল্পীদের নিয়মিত আবৃত্তিশিল্পের চর্চার পাশাপাশি ভালো মানুষ হয়ে ওঠার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। বিশ্বজিৎ পাল বলেন নবীন আবৃত্তিশিল্পীরা নিয়মিত চর্চার মাধ্যমে আবৃত্তিশিল্পকে সমৃদ্ধ করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন নাজরাতুন নাঈম তিভা, হৈমন্তী শুক্লা মল্লিক, মৌসুমী চক্রবর্ত্তী মৌ, মাসুদ পারভেজ, মনীষা ধর, টুম্পা মজুমদার, রিমা আক্তার, এবং ফাহ্‌মিদা সুলতানা রিনি।

অনুষ্ঠানে নাজরাতুন নাঈম তিভা আবৃত্তি করেন কবি শামসুর রাহমানের পান্থজন, আবু জাফর ওবায়দুল্লাহর কোন এক মাকে এবং হুমায়ুন আজাদের আমি সম্ভবত খুব ছোট্ট কিছুর জন্যে। মৌসুমী চক্রবর্ত্তী মৌ আবৃত্তি করেন অরনী বসুর কবিতা ছেলেটা, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের পাহাড় চূড়ায়, পূর্নেন্দু পত্রীর স্রোতোস্বিনী আসে এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাধারণ মেয়ে। মাসুদ পারভেজ আবৃত্তি করেন শহীদ কাদরীর সঙ্গতি, হেলাল হাফিজের ঘরোয়া রাজনীতি এবং রুদ্র মুহাম্মদ শহিদুল্লাহ্‌র ক্লান্ত ইতিহাস। মনীষা ধর আবৃত্তি করেন সুবোধ সরকারের মেয়েটি এবং ছেলেটি, শামসুর রাহমানের একটি কবিতার জন্য, রাশেদ রউফ এর একটি ছুটি পেলে এবং মল্লিকা সেনগুপ্তের মেয়েটি রোদের পথে। টুম্পা মজুমদার আবৃত্তি করেন জীবনানন্দ দাশের যখন মৃত্যুর ঘুমে শুয়ে রবো, আবুহেনা মোস্তফা কামালের ছবি, আহসান হাবিবের যে পায় সে পায়, শান্তি লাহিড়ী এর যেতে চাস চলেই যাবি। রীমা আক্তার আবৃত্তি করেন ব্রত চক্রবর্ত্তীর মিলি দি, রঞ্জন প্রসাদের রাখো হরি আল্লাহ রাখার গল্প এবং ফাহমিদা সুলতানা রিনি আবৃত্তি করেন শুভ দাসগুপ্ত এর মেঘ বললো, শ্বেতা শতাব্দী এষ এর অলিখিত। অনুষ্ঠানটি ব্যাপক দর্শক নন্দিত হয়।

x