শিক্ষাব্রতী, দার্শনিক ও কবি মুহাম্মদ ইকবাল

শনিবার , ২১ এপ্রিল, ২০১৮ at ৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ
39

মুহাম্মদ ইকবালবিখ্যাত কবি, দার্শনিক ও শিক্ষাবিদ। উর্দু এবং ফারসি ভাষায় তিনি প্রচুর কবিতা ও প্রবন্ধ রচনা করেছেন, পেয়েছেন ‘মহাকবি’ খ্যাতি। ‘মহাকবি ইকবাল’ হিসেবেই তিনি অনেক বেশি পরিচিত। আজ তার ৭৯তম মৃত্যুবার্ষিকী। ইকবাল জন্মেছিলেন ১৮৭৭ সালের ৯ নভেম্বর পাঞ্জাবের শিয়ালকোটে। পাঞ্জাবে শিক্ষা গ্রহণ শেষে কেম্ব্রিজ ও মিউনিখে দর্শন এবং আইন বিষয়ে উচ্চ শিক্ষা নেন। পরবর্তী সময়ে মিউনিখ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯০৮ সালে পি. এইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

দেশে ফিরে পেশা হিসেবে বেছে নেন শিক্ষকতাকে। ইকবাল প্রচুর কবিতা ও প্রবন্ধ রচনা করেছেন। তাঁর লেখায় ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতা, পুঁজিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদের বিরোধিতার সুস্পষ্ট প্রকাশ লক্ষ্য করা যায়। ইসলাম ধর্মের গোঁড়ামির বিরোধিতা করায় তাঁকে গোঁড়া ধর্মাবলম্বীদের আক্রোশের শিকার হতে হয়েছিল। ইকবাল ছিলেন উদারপন্থী এবং সুফীবাদী মতাদর্শে বিশ্বাসী। তাঁর কাব্য ভাবনায় এর প্রভাব রয়েছে।

মহাকবি ইকবালের বিভিন্ন কাব্যগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে: ‘বাংদারা’, ‘বালজিব্রিল’, ‘আসরারখুদি’, ‘শিকোয়াহ’, ‘জবাবশিকোয়াহ’ প্রভৃতি।

দ্য রিকন্সট্রাকশন অব রিলিজিয়াস থট্‌ ইন ইসলাম’ এবং ‘আরমিথানহিজাজ’ নামে তাঁর দুটো প্রবন্ধ গ্রন্থ রয়েছে। দ্বিতীয় গ্রন্থটি ইকবালের মৃত্যুর পর প্রকাশিত হয়। ইকবালের অধিকাংশ রচনাই বাংলায় অনূদিত হয়েছে।

১৯৩৮ সালের ২১ এপ্রিল মহাকবি ইকবালের জীবনাবসান ঘটে।

x