সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ‘রূপকল্প ২০২১ অর্জন সম্ভব হবে

কাস্টমস বন্ড কমিশনারের বিজিএমইএ নেতৃবৃন্দের সাক্ষাৎ

আজাদী প্রতিবেদন

শুক্রবার , ২২ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৫:০০ পূর্বাহ্ণ
20

কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট চট্টগ্রামের নব নিযুক্ত কমিশনার মো. আজিজুর রহমান বলেছেন, বিপুল সংখ্যক কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা আহরণেও তৈরি পোশাক শিল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এই শিল্পকে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগীতা রাখতে কাস্টমস বন্ড ব্যবসায়ীদের পাশে থাকবে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ‘রূপকল্প২০২১’ সালের মধ্যে পোশাক শিল্পে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে। গত বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট চট্টগ্রাম অফিসে বিজিএমইএ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সৌজন্যে সাক্ষাতকালে তিনি এসব কথা বলেন। বন্ড কমিশনার এসময় পোশাক শিল্প প্রতিষ্ঠানের হালনাগাদ অডিট সম্পাদনে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ, কমপ্লায়েন্স সংক্রান্ত কারণে বন্ধ প্রতিষ্ঠান সমূহের মালামাল অন্যত্র স্থানান্তর ও কারখানা স্থানান্তরে দ্রুত অনুমোদনসহ বিজিএমই নেতাদের উপস্থাপিত বিভিন্ন সমস্যাসমূহ সমাধানে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য নির্দেশ দেন।

বিজিএমইএ’র প্রথম সহসভাপতি মঈনউদ্দিন আহমেদ মিন্টু বলেন, বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প বর্তমানে কঠিন সময় অতিক্রম করছে। গ্যাস, বিদ্যুৎ সংকটসহ অবকাঠামোগত বিভিন্ন সমস্যার কারণে চট্টগ্রামের পোশাক শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে অর্ডার সংকট রয়েছে। এর মধ্যেও আগামী ২০২১ সালের মধ্যে ৫০ বিলিয়ন ডলার রপ্তানীর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বিজিএমইএ প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিজিএমইএ’র এ এম মাহাবুব চৌধুরী, সাইফ উল্লাহ মনসুর, প্রাক্তন প্রথম সহসভাপতি এম এ ছালাম, প্রাক্তন পরিচালক এ এম চৌধুরী সেলিম, অঞ্জন শেখর দাশ এবং বিজিএমইএর সদস্য শওকত ওসমান। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএর পরিচালক আমজাদ হোসেন চৌধুরী, প্রাক্তন পরিচালক নাফিদ নবী, বিজিএমইএ সদস্য চৌধুরী নাঈম রহমান, মো. মহসীন, এম এ হান্নান, খন্দকার বেলায়েত হোসেন, এনামূল আজিজ চৌধুরী, শহীদ সাইফুল ইসলাম, সাহেদ তৌহিদুল ইসলাম, বিজয় শেখর দাশ, সমীর কান্তি, রাকিবুল আলম চৌধুরী, কাস্টমস্‌ বন্ড কমিশনারেট এর পক্ষে যুগ্ম কমিশনার সফিউর রহমান, সহকারী কমিশনার নিপুন চাকমা, আয়েশা সিদ্দিকা ও আমির মামুন প্রমুখ।

x