সীমানা নিয়ে আপত্তি জানাতে হবে ১ এপ্রিলের মধ্যে

একাদশ সংসদ নির্বাচন

আজাদী প্রতিবেদন

শনিবার , ২৪ মার্চ, ২০১৮ at ৩:৫১ পূর্বাহ্ণ
22

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের খসড়া সীমানা নিয়ে কারো দাবি কিংবা আপত্তি থাকলে আগামী ১ এপ্রিলের মধ্যে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে আবেদন করতে হবে। দাবি-আপত্তি শুনানির পর নিষ্পত্তি শেষে সংসদীয় আসনের চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশ করা হবে। সেই গেজেট অনুযায়ী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন সচিবালয় সূত্রে এ কথা জানা গেছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারা দেশে সংসদীয় আসনের খসড়া গেজেট গত সপ্তাহে প্রকাশ করেছিল নির্বাচন কমিশন। চট্টগ্রামে ১৬টি সংসদীয় আসনের মধ্যে বোয়ালখালী-চান্দগাঁও আসনে শ্রীপুর ও খরনদ্বীপ ইউনিয়ন দুটি পুনরায় যুক্ত করা হয়েছে। এই দুই ইউনিয়ন আগে রাঙ্গুনিয়া আসনের সাথে ছিল। অপরদিকে খসড়া গেজেটে পটিয়ার ৫টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত কর্ণফুলী উপজেলাকে আনোয়ারা সংসদীয় আসনের সাথে যুক্ত করা হয়েছে। অপর ১৪টি সংসদীয় আসন পূর্বের ন্যায় (দশম জাতীয় সংসদ) বহাল রয়েছে।
চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিস থেকে জানা গেছে, সংসদীয় আসনের সীমানা চূড়ান্ত হওয়ার পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ভোট কেন্দ্র নির্ধারণের প্রস্তুতি শুরু হবে। চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের খসড়া সীমানা তালিকা নিয়ে জেলা ও বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তাদের সাথে সভা গত ১৮ মার্চ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় একাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সংসদীয় আসনের সীমানার খসড়ার ব্যাপারে কারো কোনো ধরনের দাবি-আপত্তি থাকলে আগামী ১ এপ্রিলের মধ্যে আবেদন করতে হবে।
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন হয়েছিল ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি। ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি বর্তমান সরকার গঠিত হয়। সংবিধান অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ১১ জানুয়ারির আগের ৯০ দিনের মধ্যে একাদশ সংসদ নির্বাচনের বাধ্যবাধকতা আছে।
নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা জানান, চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেই লক্ষ্যে প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন। গত ৩১ জানুয়ারি দেশব্যাপী চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। এখন ধাপে ধাপে জাতীয় নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করছে।

x