রাউজান প্রতিনিধি

পাহাড়ী ঢলে সম্প্রতিক সময়ে রাউজানে সৃষ্ট বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ছয়টি ইউনিয়নের যোগাযোগ অবকাঠামো দেখতে গিয়ে রেলপথ মন্ত্রনালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি বলেছেন পাহাড়ী ঢলের কারণে রাউজানের সুন্দর যোগাযোগ ব্যবস্থাকে তছনছ করে দিয়েছে। অনেক ঘর বাড়ী তিগ্রস্ত হয়েছে। সর্তা ও ডাবুয়া খালের বেড়ীবাঁধ ভেঙ্গে গ্রামের ভিতর পানি প্রবাহের কারণে সবকটি সড়ক ও রাস্তা ধসে ছিন্ন ভিন্ন হয়েছে। দিন ব্যাপী সরেজমিনে পরিদর্শনের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, এসব রাস্তা আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে হলে কোটি কোটি দরকার। তিনি বলেন, অতীতে অনেক প্রকৃতিক দুর্যোগের মুখামুখি হয়েছে রাউজানের মানুষ। কিন্তু এবারের মত যোগাযোগ ব্যবস্থায় ধ্বংস আর দেখা যায়নি। গত শনিবার সকাল নয়টা থেকে বিকাল পর্যন্ত তিনি উপজেলার চিকদাইর, ডাবুয়া, হলদিয়া ইউনিয়ন ও পৌরসভার ক্ষতিগ্রস্ত রস্তাঘাট ঘুরে ঘুরে দেখেন। তিনি বিভিন্ন এলাকার দুর্যোগ কবলিত মানুষের সাথে কথা বলে ধৈর্য ধারণের পরামর্শ দেন।

এ সময় সাংসদের সাথে ছিলেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এহেছানুল হায়দর চৌধুরী বাবুল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম হোসেন রেজা, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল উদ্দিন আহমদ, হলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম, ডাবুয়ার চেয়ারম্যান আবদুর রহমান চৌধুরী লালু,উরকিরচরের চেয়ারম্যান ছৈয়দ আব্দুল জব্বার সোহেল, চিকদাইর ইউপি চেয়ারম্যান প্রিয়োতোষ চৌধুরী,কাউন্সিলর আলমগীর আলী, জমির উদ্দিন পারভেজ, পৌর আওয়ামীলীগ নেতা নজরশুল ইসলাম চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, এডভোকেট দিপক দত্ত, আহসান হাবিব চৌধুরী, সামিমুল ইসলাম চৌধুরী সামু,পূজা উদযাপন পরিষদের নেতা শ্যামল পালিত, সুমন দে, ম্যালকম চক্রবর্তী প্রমূখ।

LEAVE A REPLY