মীরসরাই প্রতিনিধি ।।

ঝালকাঠি জেলা থেকে প্রেমের টানে মীরসরাই উপজেলায় এলেও পুলিশের হাতে আটক হলো প্রেমিকা। মীরসরাইয়ের ক্রিকেটার যুবক আর ঝালকাঠির কলেজ পড়ুয়া এই জুটির বিচ্ছেদ ঘটলো গতকাল শুক্রবার ঝালকাঠি থেকে আগত পুলিশের হাতে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশের হস্তান্তরের মাধ্যমে।

স্নাতকে পড়ুয়া ঝালকাঠির কন্যা জান্নাতুল ফেরদৌস মিলা ফেসবুকে প্রেমে পড়ে মীরসরাইয়ের করেরহাট ইউনিয়নের ছত্তরুয়া গ্রামের ক্রিকেটার যুবক শাখাওয়াত হোসেনের। বাঁধভাঙ্গা প্রেমে ঝালকাঠি থেকে মীরসরাই ছুটে আসে তরুণী মিলা। কিন্তু এতে বাঁধ সাধে তরুণীর বাবা মনির হোছাইন। বাবা মেয়ের সন্ধানে হন্যে হয়ে খোঁজ পেলেন ফেসবুকে বন্ধুত্ব হয়ে মীরসরাইয়ে এসেছে কন্যা। আর সেই হিসেবে ঝালকাঠি পুলিশের সাহায্য নিয়ে যোগাযোগ করলো জোরারগঞ্জ থানা পুলিশের সাথে। এখানকার পুলিশ খোঁজ করতে গিয়ে সন্ধান পেল মীরসরাই উপজেলার ৪ যুবক দেশের বিভিন্ন স্থানে গিয়ে ক্রিকেট খেলছে। আর তাদের মধ্য থেকে এই শাখাওয়াতের কাছেই আসে মেয়েটি। জোরারগঞ্জ থানা পুলিশও মেয়েটিকে ছত্তরুয়া গ্রামের ছেলের বাড়ির পার্শ্ববর্তী ছেলের বোনের বাড়ি থেকে মেয়েটিকে আটক করে। এসময় যুবক শাখাওয়াতকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি বলে জানান জোরারগঞ্জ থানার এসআই বিপুল দেবনাথ। গতকাল শুক্রবার বিকেল নাগাদ জোরারগঞ্জ থানায় আসেন কন্যার পরিবার ও ঝালকাঠি থানার পুলিশ। জোরারগঞ্জ থানার ওসি জাহিদুল কবিরের উপস্থিতিতে আগত পুলিশ ও পরিবারের হেফাজতে হস্তান্তর করা হয় যুবতী জান্নাতুল ফেরদৌস মিলাকে।

LEAVE A REPLY