সন্দ্বীপ প্রতিনিধি

দুপুর দেড়টা। সন্দ্বীপ উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের ফটক সংলগ্ন ন্যাশনাল ব্যাংকের নিচে বসে ভিক্ষা করছিলেন ৬৫/৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ। সাথে বসে আছে ১০ বছর বয়সী এক শিশুও। দু’জনে পাশাপাশি বসে সিঙ্গারা খাচ্ছিলেন। হঠাৎ ভিক্ষুকের টাকার থলে নিয়ে দৌঁড় দেয় শিশুটি। এ সময় বৃদ্ধ ভিক্ষুকের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ধরে ফেলে স্কুল পড়ুয়া শিশুটিকে। শিশুটির নাম আয়মন। সে উপজেলা সদরের থানা উন্নয়ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী। ভিক্ষুক লুলু জানান, গত ২/৩দিন ধরে শিশুটি তার কাছে বসে কিছু সময় আড্ডা দিত। সে আজ সিঙ্গারা এনে তাকে খেতে দিয়ে তার কাছে থাকা পলিথিন মোড়ানো ভিক্ষার টাকা নিয়ে দৌঁড় দেয়। জানা গেছে, আয়মন উপজেলা সদরের পৌরসভা ৮নং ওয়ার্ডের ওমর ফারুকের ছেলে। আয়মনের এক সহপাঠী জানায়, তার কিছুটা চুরির অভ্যাস আছে। থানা উন্নয়ন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোকতাদের মাওলা জানান, শিশুটি আজ স্কুল আসেনি। তিনি ঘটনার বিষয়ে তার বাবাকে জানাবেন এবং তাকে সংশোধনের চেষ্টা চালাবেন বলেও জানান।

LEAVE A REPLY