আজাদী প্রতিবেদন

ভাড়া বাসা থেকে ৪৩ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একইসাথে দন্ডিত আসামিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। জরিমানার টাকা আদায় করতে ব্যর্থ হলে ওই আসামিকে অতিরিক্ত ১ বছরের কারাদন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। সাজা ও জরিমানাপ্রাপ্ত ওই আসামির নাম মোহাম্মদ নূরুল আলম প্রকাশ আলম। গতকাল রোববার চট্টগ্রামের পঞ্চম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো.নূরে আলম এই রায় দিয়েছেন।

ঘটনার বিবরন অনুযায়ী, ২০০৮ সালের ৬ মার্চ সকাল ৯টার দিকে হাটহাজারী উপজেলার ফতেয়াবাদ চৌধুরীহাট এলাকায় ছনা গাজীর বাড়িতে ভাড়টিয়া নূরুল আলমের ঘরে অভিযান চালিয়ে ফেনসিডিল উদ্ধার করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। এই ঘটনায় অধিদপ্তরের পরিদর্শক লোকাশীষ চাকমা বাদী হয়ে হাটহাজারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। লোকাশীষ চাকমা অভিযানের সময়ও নেতৃত্ব দেন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা পিপি লোকমান হোসেন চৌধুরী জানান, নূরুল আলমকে অভিযুক্ত করে ২০০৮ সালের ১৬ এপ্রিল অভিযোগপত্র দাখিলের পর ৪ জুন অভিযোগ গঠন করেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষ ছয়জনকে সাক্ষী হিসেবে আদালতে উপস্থাপন করেছেন। আসামি নূরুল আলম গ্রেফতারের পর জামিনে গিয়ে পলাতক আছেন বলে জানিয়েছেন লোকমান।

তিনি আরো জানান, মামলায় আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ রাষ্ট্রপ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে। এ কারণে আদালতের বিচারক আসামির সাজা ও আর্থিক দন্ড নিশ্চিত করে রায় দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY