আবারো কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করতে চলেছেন আর্জেন্টাইন ফুটবলের জাদুকর দিয়েগো ম্যারাডোনা। লম্বা বিরতির পর কোচিং পেশায় ফিরলেন আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বর। সংযুক্ত আরব আমিরাতের দ্বিতীয় বিভাগের দল আলফুজাইরাহ ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি শেষে ক্লাবটিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। এক বছরের চুক্তিতে গত মে মাসে কোচের দায়িত্ব নিলেও আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বর এখনো আমিরাতের ক্লাবটির হয়ে কাজ শুরশু করেননি। তবে শিগগিরই কাজ শুরু করবেন। ইতোমধ্যে ফুজাইরাহ স্টেডিয়ামে ক্লাবের সমর্থকদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়েছে ম্যারাডোনাকে। শেষ হয়েছে খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচয়পর্ব।

আমিরাত ক্লাবেই সবশেষ কোচিংয়ের অভিজ্ঞতা নিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। কিন্তু, তা সুখকর ছিল না। ২০১২ সালের জুলাইয়ে আল ওয়াসল থেকে বরখাস্ত হওয়ার পর থেকেই কোচিংয়ের বাইরে ৮৬’র বিশ্বকাপ জয়ী। এর আগে নিজের প্রিয় ক্লাব ইতালিয়ান জায়ান্ট নাপোলির কোচ হতে চেয়েছিলেন এই ফুটবল কিংবদন্তি। আর্জেন্টিনা জাতীয় দল ছাড়াও দেশটির দ্বিতীয় সারির একটি ক্লাব, প্রিমিয়ার বিভাগে খেলা রেসিং ক্লাবের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ম্যারাডোনা। কিন্তু এই ফুটবল জাদুকর একেবারেই সফল হতে পারেননি কোচিং ক্যারিয়ারে। এছাড়া, মরোক্কো, ফিলিস্তিন, চীন, ইরাক, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহারাইন জাতীয় দল আর ইংলিশ ক্লাব অ্যাস্টন ভিলার কোচ হতে চেয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন ম্যারাডোনা। ম্যারাডোনা জানান, ‘আমি এই নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচয় হয়েছে, কিন্তু জানি না তারা কেমন। আমার কোচিং স্টাফরা দারুণ বলে শুনেছি। মাঠের খুটিনাটি সম্পর্কে আমি খেলোয়াড়দের শেখাবো। মাঠে আমি খেলোয়াড়দের সবকিছুই দেব। তাদের সেরাটা বের করে আনার চেষ্টা করব। মূল ফোকাসটা থাকবে দলের অ্যাটাকিংয়ের ওপর।

LEAVE A REPLY