মাথার উপর দেনা ২ কোটি ৫০ লক্ষ ইউয়ান। সেই দেনা থেকে বাঁচতে এক চীনা মহিলা যা করলেন, তা কল্পনাতেও আসবে না। প্লাস্টিক সার্জারি করে নিজের মুখের ভোল বদলে ফেললেন তিনি। এমনই এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে চীনের শেনঝেন শহরে।

দিনের পর দিন একাধিক সংস্থা এবং ব্যক্তির কাছ থেকে টাকা ধার নিচ্ছিলেন ঝু নাজুয়ান নামে ৫৯ বছরের এক চীনা মহিলা। দেনার পরিমাণ বেড়েই চলছিল। শেষমেশ সেই পরিমাণ গিয়ে দাঁড়ায় ২ কোটি ৫০ লক্ষ ইউয়ানে। এ দিকে সেই অর্থ ফেরত দেওয়া দূরে থাক, পাওনাদারদের থেকে পালিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন তিনি।

অভিযোগের পাহাড় জমতে শুরু করে তার বিরুদ্ধে। অবস্থাটা এমন হয়েছিল যে, পাওনাদাররা আদালতের দ্বারস্থ হন। আদালতের তরফে ওই মহিলাকে পাওনাদারদের সমস্ত পাওনা মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। এর পর থেকেই ফেরার ছিলেন ওই মহিলা। সম্প্রতি শেনঝেন শহরের পুলিশ তাকে পাকড়াও করে। তবে প্রথমটায় বেশ সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়েছিল তাদের। মুখ বদলে যাওয়ায় ধৃত মহিলাই ঝু নাজুয়ান কি না তা নিয়ে সন্দেহ ছিল। পরে মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তার পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়। ধৃত মহিলা জানিয়েছেন, প্লাস্টিক সার্জারির জন্য অন্যের ব্যাঙ্ক কার্ড ব্যবহার করেছিলেন তিনি। এমনকী পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পালিয়ে পালিয়ে বেড়াতেন। ট্রেনে সফরের জন্য ব্যবহার করতেন অন্যান্য ব্যক্তিদের পরিচয়পত্র।

LEAVE A REPLY