বাংলাদেশে স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও জনসেবার উন্নয়ন এবং সরকারি ক্রয় কার্যক্রমে স্বচ্ছতা আনতে গৃহীত দুটি প্রকল্পের জন্য ৫৭ কোটি ডলারের ঋণ অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। বিশ্ব ব্যাংকের ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন (আইডিএ) থেকে দেওয়া এই ঋণে মাত্র শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ হারে সুদ দিতে হবে। ছয় বছরের রেয়াতকালসহ ৩৮ বছরে তা পরিশোধ করা যাবে। গত ২৮ জুলাই ওয়াশিংটনে বিশ্ব ব্যাংকের সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিত বোর্ড সভায় বাংলাদেশের দুই প্রকল্পের জন্য এ ঋণ অনুমোদন হয়। প্রকল্প দুটির মধ্যে ৫১ কোটি ৫০ লাখ ডলার দেওয়া হবে স্বাস্থ্য খাতের ‘হেলথ সেক্টর সাপোর্ট’ প্রকল্পে। আর বাকি ৫ কোটি ৫০ লাখ ডলার দেওয়া হবে ‘ডিজিটাল ইমপ্লিমেন্টেশন মনিটরিং অ্যান্ড পাবলিক প্রকিউরমেন্ট’ প্রকল্পে। খবর বিডিনিউজের।

স্বাস্থ্য খাতের প্রকল্পের আওতায় সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়নে কাজ করা হবে। অপর প্রকল্পের আওতায় সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত সহস্রাধিক সংস্থায় ইলেকট্রনিক প্রকিউরমেন্ট (জিপি) চালু করা হবে। এর আগে এ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ চারটি জায়গায় ইজিপি চালুতে সহায়তা করেছিল বিশ্ব ব্যাংক। এ বিষয়ে এক বিবৃতিতে বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর চিমিয়াও ফন বলেন, “বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ও গণখাতে ক্রয় কার্যক্রম জোরদারে বিশ্ব ব্যাংক সরকারের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী। তাই এ ঋণ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। “এসব প্রকল্পের বাস্তবায়ন বাংলাদেশকে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হতে সহায়তা করবে।”

LEAVE A REPLY