আজাদী প্রতিবেদন

নবগঠিত কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে আজ শনিবার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবে নির্বাচন কমিশন। আগামী ২০ আগস্ট এই উপজেলার নির্বাচন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১১ জন প্রার্থী মাঠে রয়েছেন।

নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ সকাল সাড়ে ১০টায় জুলধা ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন কর্মকর্তার অস্থায়ী কার্যালয়ে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহদাত হোসেন চৌধুরী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করার জন্য এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মইন উদ্দিন খান। বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান। এছাড়া আঞ্চলিক ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, কর্ণফুলী থানার অফিসার ইনচার্জসহ সংশ্লিষ্ট সকলে উপস্থিত থাকবেন। এ উপজেলার নির্বাচন কর্মকর্তা ছৈয়দ মোহাম্মদ আবু সাইয়্যেদ। গত ২৬ জুলাই মনোনয়নপত্র যাচাইবাছাই শেষ হয়েছে। ২ আগস্ট প্রার্থিতা প্রত্যাহারের দিন শেষ হলে ৩ আগস্ট প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয় এবং ৪ আগস্ট আনুষ্ঠানিক প্রচারপ্রচারণা শুরু হয়। দেশের ৪৯০তম উপজেলা হিসেবে কর্ণফুলী উপজেলা ঘোষণা হওয়ার পর প্রথমবারের মতো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচন ঘিরে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ব্যাপক উৎসাহউদ্দীপনা দেখা দিয়েছে।

এখানে চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফারুক চৌধুরী, বিএনপির প্রার্থী দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহসভাপতি অ্যাডভোকেট এসএম ফোরকান, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী ও ইসলামিক ফ্রন্টের প্রার্থী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দিদারশুল ইসলাম চৌধুরী, বিএনপির হাজী মো. ওসমান, ইসলামী ফ্রন্টজাপার প্রার্থী মাওলানা মো. মুছা ও ইসলামিক ফ্রন্টের প্রার্থী হাফেজ মাওলানা নাছির উদ্দিন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কর্ণফুলী থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী বানাজা বেগম নিশি, বিএনপির মহিলা নেত্রী উম্মে মিরজান শামীমা ও জাতীয় পার্টির মুন্নি বেগম।

LEAVE A REPLY