উত্তর কোরিয়াযুক্তরাষ্ট্রের মাঝে চলমান রাজনৈতিক উত্তেজনায় উত্তর কোরিয়ার ভয় পাওয়া উচিত বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘তারা (উত্তর কোরিয়া) যদি যুক্তরাষ্ট্রের উপর কিছু করে তবে তাদের খুবই ভয়ে থাকা উচিত।’ বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

ট্রাম্প বলেন, অল্প কিছু দেশের মতো উত্তর কোরিয়ার সাম্রাজ্যও বিপদে পড়বে। তিনি বলেন, তার পূর্বসূরীরা উত্তর কোরিয়ার ব্যাপারে দুর্বল ছিলেন, কিন্তু তিনি এমনটা করবেন না। মার্কিন ঘাঁটিতে উত্তর কোরিয়ার হামলার হুমকির জবাবে দেশটিকে ‘ধূলায় মিশিয়ে দেওয়া’র হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আর উত্তর কোরিয়া ঘোষণা দিয়েছে তারা গুয়ামে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে মিসাইল হামলার পরিকল্পনা করছে। ওই ঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্রের অনেক সেনা ও প্রায় ১ লাখ ৬৩ হাজার মানুষের বসবাস। উত্তর কোরিয়ার দাবি, তারা আগস্টের মাঝামাঝি সময়েই হামলার সব প্রস্তুতি শেষ করে ফেলবে এবং নেতা কিম জং উনের নির্দেশের অপেক্ষায় থাকবে। এবিষয়ে চীনের আরও অনেক কিছু করার আছে বলে মনে করেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেমস ম্যাটিস বলেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সশস্ত্র যুদ্ধ ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনবে। তবে কূটনৈতিক পদক্ষেপ কাজে আসছে বলেও জানান তিনি। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত আসলে তারা উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে যুদ্ধে যেতে প্রস্তুত রয়েছে। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের উপরে কোনও আঘাত আসলে আনজুস চুক্তি ভঙ্গ হবে এবং যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকবে অস্ট্রেলিয়া। উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক কর্মসূচি বন্ধ করানোর জন্য মরিয়া হয়ে আছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। অবশ্য, এখন পর্যন্ত নতুন আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা, উত্তর কোরিয়াকে চাপ দিতে চীনের ওপর চাপ জোরালো করা এবং হামলা চালানোর হুমকির মধ্যেই ট্রাম্প প্রশাসনের তৎপরতা সীমাবদ্ধ রয়েছে।

. কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ১৪ মিনিটে গুয়ামে

যদি উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে, সেটা প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের দ্বীপ গুয়ামে পৌঁছাতে সময় নেবে মাত্র ১৪ মিনিট। বৃহস্পতিবার এক সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে গুয়ামের অভ্যন্তরীণ প্রতিরক্ষা অধিদপ্তরের মুখপাত্র জেনা গামিন্দে এ তথ্য জানিয়ে বলেন, এ রকম পরিস্থিতিতে সাইরেন বাজিয়ে দ্বীপের বাসিন্দাদের সতর্ক করা হবে। যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক দ্য প্যাসিফিক ডেইলি নিউজের বরাত দিয়ে এনডিটিভি এ খবর প্রকাশ করেছে।

অগাস্টের মাঝামাঝি কোনো এক সময় যুক্তরাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত দ্বীপ গুয়ামে কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার প্রস্তুতি নেওয়ার হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএর প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির নেতা কিম জং উন ওই পরিকল্পনা অনুমোদন করলে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ছোড়া হবে। এগুলো জাপান সাগরের ওপর দিয়ে উড়ে গিয়ে গুয়াম দ্বীপ থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরে সমুদ্রে পড়বে।

LEAVE A REPLY