ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের একটি হাসপাতালে পাঁচ দিনে নবজাতকসহ ৬০ শিশু মারা গেছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী অদিত্যনাথের পার্লামেন্ট আসন গোরক্ষপুরের একটি হাসপাতালে ঘটনাটি ঘটেছে। বৃহস্পতিবার ২৩টি শিশু মারা যায় এবং ওই সময় হাসপাতালটি থেকে অক্সিজেন সরবরাহে বিঘ্ন ঘটার কথা জানানো হয়েছিল। কিন্তু কোনো শিশু অক্সিজেনের অভাবে মারা যায় নাই বলে জোরালোভাবে দাবি করেছে উত্তর প্রদেশ রাজ্য সরকার। অবহেলাজনিত কারণে শিশুদের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলে স্বীকার করে বিষয়টি তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। বুধবার নয়টি শিশু ও আগের তিন দিনে আরো ২৮টি শিশু মারা যায়। খবর বিডিনিউজের।

গোরক্ষপুরের সবচেয়ে বড় হাসপাতাল বাবা রাঘব দাস মেডিকেল কলেজে এসব ঘটনা ঘটেছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ বুধবার হাসপাতালটি পরিদর্শন করেছেন। গতকাল শনিবার সকালে করা এক টুইটে আদিত্যনাথ এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালের অক্সিজেন বিভাগের দায়িত্বে থাকা এক কর্মী তার উর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে অক্সিজেন স্বল্পতার কথা জানিয়ে হাতে থাকা মজুদে ওই দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত কাজ চলতে পারে বলে জানিয়েছিলেন। ওই দিন রাতের এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে, রাতে হাসপাতালটিতে অক্সিজেনের ঘাটতি সঙ্কটজনক পর্যায়ে চলে গিয়েছিল। ওই দিন হাসপাতালটিতে ২৩টি শিশু মারা যায়, এদের মধ্যে ১৪ জন নবজাতক।

LEAVE A REPLY