ক্রীড়া প্রতিবেদক

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং আয়ারল্যান্ডের ত্রিদেশীয় সিরিজকে সামনে রেখে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করতে যাওয়ার পর থেকেই বৃষ্টির কবলে পড়তে হয়েছে বাংলাদেশকে। যা অব্যাহত ছিল গতকাল ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচেও। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশআয়ারল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়ে গেল। গতকাল ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল টাইগাররা। কিন্তু ম্যাচ শুরু হওয়ার আগেই বাগড়া বসিয়েছিল বৃষ্টি। এতে কিছুটা দেরিতে শুরু হয় খেলা। ম্যাচের মাঝপথে আবারও হানা দিয়েছে বৃষ্টি। ম্যাচের ৩২তম ওভারের প্রথম বলটি করতে পেরেছেন টিম মুরতাগ। এরপরই নামে বৃষ্টি। এরপর থেকে বন্ধ রয়েছে খেলা। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৪ উইকেটে ১৫৭ রান। তামিম ইকবাল ৬৪ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৪৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে সাকিব আল হাসানের দল। সূচনাটা ভালো হয়নি মোটেও। শুরুতেই সৌম্য সরকারকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে বাংলাদেশ। তামিম ইকবালের সঙ্গে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নেমে মাত্র ৭ বল মোকাবেলা করেছেন এই ওপেনার। একটি বাউন্ডারিতে ৫ রান করতেই পিটার চেজের বলে নেইল ও’ব্রেইনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন সৌম্য সরকার । সফরের প্রস্তুতি ম্যাচ গুলোতে সেঞ্চুরি করেছিলেন সাব্বির রহমান। কিন্তু মূল লড়াইয়ে এসে হতাশ করেছেন তিনি। ৩ বল খেলে ফিরেছেন এই হার্ড হিটার কোন রান করার আগেই। পিটার চেজের বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে সাব্বির ধরা পড়েন টিম মুরতাগের হাতে। প্রস্তুতি ম্যাচে সেঞ্চুরি করা মুশফিকুর রহীমও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। টাইগারদের অন্যতম ভরসা মুশফিক থেমেছেন ১৩ রানে। ব্যারি ম্যাকআর্থির বল থার্ডম্যান অঞ্চলে কাট করতে গিয়ে িপে গ্যারি উইলসনের হাতে ধরা পড়েন মুশফিক। ১৭ বলে তিনটি চারের সাহায্যে ১৩ রানের ইনিংসটি সাজান মুশফিক। এরপর আয়ারল্যান্ডের বোলারদের তোপে পড়েছে বাংলাদেশ। শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে সফরকারীরা। সেই বিপর্যয় কাটিতে উঠতে হাল ধরতে পারতেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। কিন্তু পারেননি। ১৬ বলে দুটি চারের সাহায্যে ১৪ রান করতেই পিটার চেজের শিকারে পরিণত হন সাকিব। দলীয় ৭০ রানের মাথায় আইরিশ উইকেটরক্ষক নেইল ও’ব্রেইনের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাকিব প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন এক রাশ হতাশা উপহার নিয়ে। ৭০ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর পাল্টা আক্রমণ গড়ে তোলেন তামিম এবং মাহমুদুল্লাহ। এবার এ দুজন শাসন করতে থাকেন আয়ারল্যান্ডের বোলারদের । বৃষ্টি এসে থামিয়েছেন তাদের। এ দুজন অবিচ্ছিন্ন ৮৭ রান যোগ করেন পঞ্চম উইকেট জুটিতে। কিন্তু বৃষ্টি এসে থামিয়ে দিলে তাদের। তামিম ৮৮ বলে ৮টি চারের সাহায্যে ৬৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। আর মাহমুদুল্লাহ ৫৬ বলে ৪টি চার এবং একটি ছক্কার সাহায্যে ৪৩ রানে অপরাজিত থাকেন। শুরু বিপর্যয় কাটিয়ে দারুণভাবে ফেরা বাংলাদেশকে থামাতে যেন তৎপর ছিল বৃষ্টিও।

LEAVE A REPLY